আপনি এখানে:Homeঅ্যাডভোকেসি ও ক্যাম্পেইনঅ্যাডভোকেসিসুপ্র ও অক্সফ্যামের যৌথ আয়োজনে কর ন্যায্যতা পরীবিক্ষণ প্রতিবেদন শীর্ষক জাতীয় মতবিনিময় সভা

সুপ্র ও অক্সফ্যামের যৌথ আয়োজনে কর ন্যায্যতা পরীবিক্ষণ প্রতিবেদন শীর্ষক জাতীয় মতবিনিময় সভা

img 1১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ঢাকার সিরডাপ অডিটরিয়ামে জাতীয় আয়কর দিবস ২০১৯ উপলক্ষে সুশাসনের জন্য প্রচারাভিযান-সুপ্র ও অক্সফ্যামের আয়োজনে কর ন্যায্যতা পরীবিক্ষণ প্রতিবেদন শীর্ষক জাতীয় মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। সুপ্র চেয়ারপার্সন জনাব আবদুল আউয়ালের সভাপতিত্বে ও সঞ্চালনায় সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় পরিকল্পনা মন্ত্রী জনাব এম এ মান্নান, এমপি। এছাড়া আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাবেক সচিব ও জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের সাবেক চেয়ারম্যান জনাব ড. মুহাম্মদ আব্দুল মাজিদ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক জনাব ড. মাহবুবুল মোকাদ্দেম আকাশ, দৈনিক প্রথম আলোর সহযোগী সম্পাদক জনাব আব্দুল কাইয়ুম, অক্সফ্যাম ইন বাংলাদেশ-এর পলিসি, এডভোকেসি, ক্যাম্পেইন এন্ড কমিউনিকেশনস ম্যানেজার জনাব এস এম মনজুর রশীদ। সভার শুরতেই সুপ্র সাধারণ সম্পাদক জনাব মজিবুর রহমান উপস্থিত সকলকে স্বাগত জানিয়ে সুপ্র’র সংক্ষিপ্ত পরিচিতি তুলে ধরেন। অনুষ্ঠানের বিষয়বস্তুর উপর পাওয়ার পয়েন্ট প্রেজেন্টেশন প্রদান করেন তরুণ গবেষক মোহাম্মদ শহীদ উল্লাহ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মাননীয় মন্ত্রী বলেন, নানান বাধা উপেক্ষা করেও কর ন্যায্যতা নিশ্চিত করার চেষ্টা করছে বর্তমান সরকার। এমন আয়োজনের জন্য সুপ্র’কে ধন্যবাদ জানিয়ে তিনি আরো বলেন, যারা কর প্রদান করেন তাদের সম্মান বাড়ানোর প্রচেষ্টা করা হচ্ছে। কর আদায়ে দেশের নাগরিকদের আরো শক্তিশালী করার উদ্যোগ নিতে যাচ্ছে সরকার। এছাড়া কর ন্যায্যতা এবং অর্থপাচার বন্ধ করতে নাগরিক সমাজকে এগিয়ে আসার আহবান জানান তিনি। তামাক প্রসঙ্গে তিনি বলেন, অতিরিক্ত তামাক ব্যবহার রোধে ‘তামাকের উপর কর’ আরো বাড়ানো হবে। এই ধরনের সেমিনার বেশি বেশি আয়োজনের জন্য সুপ্র’র প্রতি আহবান জানান মাননীয় পরিকল্পনা মন্ত্রী।

img 2বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ ড. এম এম আকাশ তাঁর বক্তব্যে প্রতিবেদটির সাথে সংহতি প্রকাশ করে বলেন যে, মহান সংসদে একটা স্থায়ী কমিটি গঠন করে তাদের হাতে এই ধরণের প্রতিবেদনগুলি দেয়া উচিত যাতে করে তারা এর জবাবদিহীতা আদায় করতে চেষ্টা করতে পারে।

অক্সফ্যাম ইন বাংলাদেশের এস,এম, মনজুর রশীদ তাঁর বক্তব্যে বলেন, রাষ্ট্র ও জনগণের মাঝে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহীতার ঘাটতি বিদ্যমান। ধনী গরীবের বৈষম্য কোনভাবেই কমছেনা। সরকার নিজস্ব আয়ের সহজ পথ হিসেবে দরিদ্র লোকের কাছ থেকে মূসক আদায় করছে পক্ষান্তরে দেশে করদাতার সংখ্যা বাড়ছে না বরং কর প্রদানের ক্ষেত্রে সক্ষম ব্যক্তিরা কর ফাঁকির প্রচেষ্টা অব্যহত রেখেই চলছে। তিনি বাইরের দেশগুলির সাথে মিল রেখে বাজেটে আয়ের উৎস হিসেবে আয়কর ব্যবস্থাকে অত্যাধিক গুরুত্বারোপ করেন পাশাপাশি মূসক নির্ভর হতে বিরত থাকার পরামর্শ দেন।

img 3অনুষ্ঠানে অন্যন্য বক্তারা বলেন, কর বাংলাদেশের রাজস্ব আহরণের অন্যতম একটি মাধ্যম যা দেশের উন্নয়নের প্রধান শক্তি। তাই কর সংস্কারের জন্য সুপ্র’র গবেষণা ধর্মী এধরণের কাজ প্রত্যেক বছর করার জন্য তাঁরা সুপ্রকে ধন্যবাদ জানাই। তাঁরা বলেন, সরকারের ভিশন ২০২১ ও স্থায়ীত্বশীল উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে সরকারের নানামুখী অঙ্গীকার পূরণে এ ধরণের কাজ সর্বদা সরকারের সহায়ক ভ‚মিকা পালন করে থাকে। এছাড়া তাঁরা কর আদায়ের বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন।

অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন সুপ্র’র নেটওয়ার্কভুক্ত বিভিন্ন জেলার প্রতিনিধিবৃন্দ, অক্সফ্যাম ইন বাংলাদেশের প্রতিনিধিবৃন্দ, নাগরিক সমাজের প্রতিনিধিবৃন্দ, বিভিন্ন এনজিও-র প্রতিনিধিবৃন্দ, ছাত্র- যুব-নারী প্রতিনিধিবৃন্দ, সাংবাদিকবুন্দ ও সুপ্র’র জাতীয় পরিষদ এবং নির্বাহী পরিষদের সদস্যবৃন্দ।

News Paper Link
 banglanews24  BSS logo dhakaTribune
alokito somoy share biz logo  oknews24bd
united news 24    
Go to top